ভারতের কয়েকটি জাতীয় পুরস্কার ও সম্মান

 ভারতের কয়েকটি জাতীয় পুরস্কার ও সম্মান

ভারতের কয়েকটি জাতীয় পুরস্কার ও সম্মান

সাহিত্য শিল্প, বিজ্ঞান, কলা, চিকিৎসা ও দেশসেবায় উল্লেখযোগ্য জন্যঃ (1) ভারতরত্ন, 

(2) পদ্মবিভূষণ,(3) পদ্মভূষণ, (4) পদ্মশ্রী উপাধি।

শৌর্যবীর্যের জন্যঃ 1. পরমবীর চক্র, 2. মহাবীর ক্র, 3. বীরচক্র।

শ্রেষ্ঠ সাহিত্য রচনার জন্যঃ জ্ঞানপীঠ পুরস্কার।

সাহিত্যের জন্যঃ সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার।

খেলাধূলার জন্যঃ রাজীব গান্ধি খেলরত্ন পুরস্কার, অর্জুন পুরস্কার।

আন্তর্জাতিক বন্ধুত্ব, সদিচ্ছা ও শান্তিস্থাপনের জন্য : জওহরলাল পুরস্কার।

চলচ্চিত্রে নৈপুণ্যের জন্যঃ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

শিক্ষাকতায় কৃতিত্বের জন্যঃ শিক্ষকদের জাতীয় পুরস্কার।

  ভারতের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দিবস//Some important days in India

 ভারতের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দিবস//Some important days in India

৫ সেপ্টেম্বর কার জন্মদিন?

ড. সর্বপল্লী রাধাকৃয়ণের জন্মদিন তিনি বিখ্যাত অধ্যাপক এবং পরে রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন।

কার জন্মদিন ভারতে শিশু দিবসরূপে উদ্যাপিত হয় ?

পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর জন্মদিন।

কোন্ তারিখে জাতীয় বিজ্ঞান দিবস পালিত হয় ?

২৮ ফেব্রুয়ারি তারিখে।

কার জন্মদিন জাতীয় যুব দিবসরূপে পালিত হয় ?

স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন।

গান্ধিজির জন্মদিন কবে?

২ অক্টোবর।

নেতাজির জন্মদিন কবে?

২৩ জানুয়ারি।

মৌলিক অধিকার//Fundamental rights

 মৌলিক অধিকার//Fundamental rights

ভারতের সংবিধান অনুযায়ী বর্তমানে নাগরিকদের নিম্নলিখিত মৌলিক অধিকারের কথা বলা হয়েছে। যথা— (১) সাম্যের অধিকার, (২) স্বাধীনতার অধিকার, (৩) শোষণের বিরুদ্ধে সংগ্রামের অধিকার, (৪) ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার, (৫) সংস্কৃতি ও শিক্ষা বিষয়ক অধিকার, (৬) শাসনতান্ত্রিক প্রতিবিধানের অধিকার।

 ভারতের জাতীয় পতাকা//The national flag of India

 ভারতের জাতীয় পতাকা//The national flag of India

ভারতের জাতীয় পতাকা আমাদের পতাকায় যে তিনটি বা জাফরান রং, মধ্যে সাদাত্রিবর্ণ রঞ্জিত এবং এর মাঝখানে রয়েছে অশোকচক্র। রং ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলো হল উপরে গৈরিক এবং নীচে সবুজ রং। পতাকার দৈর্ঘ্য প্রস্থের দেড়গুণ। অশোকচক্রের মধ্যে রয়েছে ২৪টি শলাকা। প্রত্যেকটি রঙেরই একটি বিশেষ অর্থ আছে। গৈরিক রং হল সাহস ও ত্যাগের প্রতীক, সাদা রং শান্তি ও সত্যের প্রতীক এবং সবুজ রং বিশ্বাস ও শৌর্যের প্রতীক। অশোকচক্র হল অগ্রগতির প্রতীক।জাতীয় পতাকার চূড়ান্ত নকশাটি ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দের ২২ জুলাই কেন্দ্রীয় সংবিধানিক সভায় গৃহীত হয়। জাতীয় পতাকা ব্যবহারের কতকগুলি নিয়মকানুন আছে, সেগুলো মেনে চলতে হয়।

 ভারতীয় ভাষা//Indian language

ভারতীয় ভাষা//Indian language

সারা ভারতে প্রায় পাঁচশোর মতো ভাষা ও উপভাষা প্রচলিত আছে। এর আছে নানা জাতি উপজাতির ভাষা ও উপভাষা। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের এইসব ভাষার মাধ্যমেই নিজেদের মনের ভাব ব্যক্ত করেন।

ভারতীয় সংবিধানে প্রথম ১৪টি ভাষাকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছিল। সেগুলো হল (১) হিন্দি, (২) তামিল, (৩) তেলেগু, (৪) মালয়ালম, (৫) বাংলা, (৬) উর্দু, (৭) মারাঠি, (৮) গুজরাতি, (৯) পাঞ্জাবি, (১০) কন্নড়, (১১) ওড়িশি, (১২) অসমিয়া (১৩) কাশ্মীরি এবং (১৪) সংস্কৃত

ভারতীয় সংবিধানে ১৯৬৭ সালে ২১তম সংশোধনে সিন্ত্রি ভাষাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ভারতীয় সংবিধানের ১৯৯২ সালের ৭১নং সংশোধনী অনুযায়ী আরও তিনটি ভাষাকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। সেগুলো হল- ১. মণিপুরি, ২. নেপালি এবং ৩. কোঙ্কনি। বর্তমানে সংবিধান স্বীকৃত ১৮টি ভাষা আছে।

 নির্বাচন কমিশন//Election Commission

                                                                             

নির্বাচন কমিশন//Election Commission

তিনজন সদস্য নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠিত। এর মধ্যে একজন হলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার। রাষ্ট্রপতি নির্বাচন কমিশনের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য মিশনারদের নিযুক্ত করেন। ভোটার তালিকা নির্ভুলভাবে প্রণয়ন করা, ভোটারদের প্রদান করা, লকসভা, রাজ্যসভা ও বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভার নির্বাচন পরিচালনা করা নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব।

 হাইকোর্ট//High Court

হাইকোর্ট//High Court

রাজ্যের বিচারব্যবস্থার শীর্ষে রয়েছে হাইকোর্ট। হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ও অন্যান্য বিচারপতিদের নিযুক্ত করেন রাষ্ট্রপতি।

হাইকোর্টের এক্তিয়ার :

১। হাইকোর্ট রাজ্যের প্রধান আপিল আদালত– দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলায় নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করা চলে। 

২। নাগরিকদের মৌলিক অধিকার ক্ষুন্ন হলে হাইকোর্ট আদেশ, নির্দেশ ও পরোয়ানা জারি করতে পারে।

৩। হাইকোর্ট মৌলিক অধিকার সংক্রান্ত মামলার শুনানি ও বিচার করতে পারে। 

৪। হাহকোর্ট তার অধীনস্থ আদালতসমূহের কাজ পরিদর্শন ও পর্যালাচোনা করতে পারে।

 

 অন্যান্য আদালত :

জেলাস্তরে জেলাজজের আদালত, সাবজজ আদালত। মহকুমাস্তরে মুনসেফের আদালত, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত ইত্যাদি বিভিন্ন আদালত আছে। এইভাবে মহকুমাস্তরের আদালত থেকে সুপ্রিম কোর্ট আদালত পর্যন্ত সমস্ত বিচারালয় নিয়েই ভারতীয় বিচারব্যবস্থা গঠিত।


Leave a Comment