ভারত ইতিহাসের কিছু কথা \Some history of India

 ভারত ইতিহাসের কিছু কথা \Some history of India

ভারতের সবচেয়ে প্রাচীন সভ্যতার নাম কী ?

মেহেরগড় সভ্যতা।

ভারতকে উপমহাদেশ বলা হয় কেন?

ভারতের বিশাল আয়তন, নৈসর্গিক বৈচিত্র্য, বিপুল জনসংখ্যা, অধিবাসীদের ধর্ম, , আকৃতি ও জাতিগত বৈচিত্র্যের জন্য ভারতকে একটি উপমহাদেশ বা পৃথিবীর কুদ্র সংস্করণ বলা হয়।

হিন্দু শব্দের উৎপত্তি কীভাবে হয়েছে?

সি শব্দ থেকেই হিন্দু কথাটা এসেছে।

আর্যরা কোন্ জাতির বংশধর?

নর্ডিক জাতির বংশধর।

আর্যদের প্রধান ধর্মগ্রন্থের নাম কী ?

বেদ।

বেদ কটি ও কী কী ?

বেদ চারটি। ঋক্, সাম, যজু ও অথর্ব।

কোন্ বেদ সবচেয়ে প্রাচীন?

ঋবেদ।

ভারতের সবচেয়ে প্রাচীন সভ্যজাতি কারা ?

দ্রাবিড় জাতি।

ভারতের কোন্ কোন্ ভাষা দ্রাবিড় ভাষার অন্তর্গত বলে মনে করা হয়?

তামিল, তেলেগু, কন্নড় ও মালয়ালমএই চারটি ভাষাকে দ্রাবিড় ভাষার অন্তর্গত বলে মনে করা হয়।

আর্য সভ্যতার পরিচয় কোথায় পাওয়া গেছে?

মহেনজোদারো ও হরপ্পায়।

ভারতীয় সভ্যতার মর্মবাণী কী ?

বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যবোধ।

সংস্কৃত মূল রামায়ণ কে রচনা করেন?

মহর্ষি লুকি।

উপনিষদ কী?

বেদের শেষভাগ হল উপনিষদ। এতে বেদের সম্যক জ্ঞানের ব্যাখ্যা আছে।

প্রতিটি বেদের অংশ (ভাগ) কটি ও কী কী?

চারটি। যথাসংহিতা, ব্রাহ্ণ, আরণ্যক, উপনিষদ 

গৌতম বুদ্ধ কোথায় জন্মগ্রহণ করেন ?

লুম্বিনীতে।

 গৌতম বুদ্ধের বাল্যনাম কী ছিল?

সিদ্ধার্থ ও গৌতম ।

বুদ্ধদেব কোথায় নির্বাণ লাভ করেন?

গয়ার নিকট উরুবিহু নামক স্থানে।

বৌদ্ধধর্মের প্রবর্তক কে?

গৌতম বু।

পঞশীলকী ?

বৌদ্ধধর্মের অনুশাসনকে বলা হয় পঞশীল। এই শীল বা নীতিগুলো হল : (১) মিথ্যা কথা না বলা, (২) চুরি না করা, (৩) অন্যায় না রা, (৪) জীবে হিংসা না করা এবং (৫) বিলাস দ্রব্য বর্জন করা।

গৌতমবুদ্ধ প্রথম কোথায় ধর্মপ্রচার করেন ?

বারাণসীর নিকট সারনাথে।

বৌদ্ধ ধর্মগ্রন্থের নাম কী ?

ত্রিপিটক।

জৈনধর্মের প্রথম প্রবক্তা কে?

পার্শ্বনাথ |

জৈনদের শেষ তীর্থঙ্কর কে ছিলেন?

মহাবীর।

ভারতের প্রাচীনতম মহাকাব্য কী কী?

রামায়ণ ও মহাভারত

জৈনদের মূলনীতি কী?এর মূল লক্ষ্য কী?

অহিংসাই জৈনধর্মের মূলনীতি। আত্মার মুক্তলাভই এই ধর্মের মূল লক্ষ্য।

জৈনদের শেষ তীর্থঙ্কর কে ছিলেন?

মহাবীর।

জৈন কাদের বলা হয়?

মহাবীর প্রবর্তিত ধর্মমতের অনুগামীদের।

জৈনধর্মের ত্রিরত্ন কী ?

সৎকর্ম, সৎব্যবহার ও সৎজ্ঞান।

জৈনরা ক’ভাগে বিভক্ত কী কী ?

দুভাগে বিভক্ত, শ্বেতাম্বর এবং দিগম্বর।

প্রাচন ভারতের তিনজন রাজার নাম উল্লেখ করো যাঁরা বৌদ্ধধর্ম গ্রহণ করেছিলেন?

বিম্বিসার, অশোক এবং হর্ষবর্ধন।

গ্রিক বীর আলেকজান্ডার কখন ভারত আক্রমণ করেছিলেন?

৩২৭ খ্রিস্টাব্দে।

কোন্ রাজার সময় থেকে শকাব্দ গণনা করা হয় ?

কণিষ্কের সময় থেকে।

চরক কে ছিলেন ?

প্রাচীন ভারতের বিখ্যাত আয়ুর্বেদজ্ঞ।

জাতক কি?

গৌতম বুদ্ধের জন্ম ও জন্মান্তরের কাহিনি যে পুস্তকে লেখা হয়েছে তাই ‘জাতক’ নামে খ্যাত।

কণিষ্ক কোন বংশের রাজা ছিলেন ?

কুষাণ বংশের।

কুষাণযুগে কোন শিল্পরীতির উদ্ভব হয়?

গান্ধার শিল্পরীতির। সমুদ্রগুপ্তকে।

‘হর্ষচরিত-এর রচয়িতা কে?

বাণভট্ট।

ভারতের নেপোলিয়ন’ কাকে বলা হয় ?

আলেকজান্ডার

মৌর্যবংশ কে প্রতিষ্ঠা করেন?

চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য ।

 

 

Leave a Comment