Class 9 Model Activity Task Life Science (September) Part 6 Question & Answers

Class 9 Model Activity Task Life Science (September) Part 6 Question & Answers // মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক নবম শ্রেণি  জিবন বিজ্ঞান পার্ট সেপ্টেম্বর (All subject September Model Activity Task Class -9)

Class 9 Model Activity Task Life Science (September) Part 6 Question & Answers

. প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে তার ক্রমিক সংখ্যার সহ বাক্যটি সম্পন্ন করে লেখ।

..বস্পমচন সংক্রান্ত সঠিক বক্তব্যটি নিরূপণ করো

) বায়ুর আপেক্ষিক আদ্রতা হ্রাস পেলে বাষ্পমোচন এর হার হ্রাস পায়।

) Ans. বায়ুপ্রবাহ বৃদ্ধি পেলে বাষ্পমোচন এর হার বৃদ্ধি পায়।

) আলোর তীব্রতা বৃদ্ধি পেলে বাষ্পমোচন এর হার হ্রাস পায়

) পরিবেশের তাপমাত্রা হ্রাস পেলে বাষ্পমোচন এর হার বৃদ্ধি পায়।

.. নিচের যে জোড়টি সঠিক তা স্থির করো

) সালোকসংশ্লেষের আলোক নির্ভর দশাক্লোরোপ্লাস্টের স্ট্রোমা

) গ্লাইকোলাইসিসকোষের মাইটোকনড্রিয়া

)Ans.  রসের উৎস্রোত  জাইলেম কলা

) সালোকসংশ্লেষের আলোক নিরপেক্ষ দশাক্লোরোপ্লাস্টের গ্রানা

.. নিচের যে বিশেষ সংযোগী কলা কেরিজার্ভ পেসমেকারবলা হয় সেটিকে শনাক্ত করার

) SA নোড

) পারকিনজি তত্ত্ব

) হিজের বান্ডিল

)Ans.  AV নোড

. শূন্যস্থান পূরণ করো :

..সূর্যালোকের ফোটন কণা শোষণ করে ক্লোরোফিল সক্রিয় হয়

.. A গ্রুপের ব্যক্তির রক্তে বিটা অ্যাগ্লুটিনিন থাকে।

..পেঁপে গাছের তরুক্ষীর প্যাপাইন নামক উৎসেচক থাকে যা প্রোটিন পরিপাকে সাহায্য করে।

. দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও:

..মুখবিবরে কিভাবে শর্করা জাতীয় খাদ্যের পরিপাক হয় তা বিশ্লেষণ করো

:-মুখগহ্বরে শর্করা জাতীয় খাদ্য লালারসে উপস্থিত টায়ালিন উৎসেচক এর সঙ্গে মিশ্রিত হয়ে মলটোজে পরিণত হয়। এরপর সামান্য পরিমাণ লালারসের মলটেজ উৎসেচক করিয়া করে খাদ্যবস্তুকে সরল শর্করা গ্লুকোজে পরিণত করে।

৩.২. কোষ থেকে কোষে পরিবহনের ব্যাপনের ভূমিকা ব্যাখ্যা করো ।

উ:-মাটি থেকে কৈশিক জল আত্মভূতি প্রক্রিয়ায় শুষে নেয় এবং এই শুষে নেওয়া জল কোষ প্রাচীর এর সমস্ত অংশে ব্যাপন প্রক্রিয়া সমানভাবে ছড়িয়ে পড়ে। শ্বসন ও সালোকসংশ্লেষের জন্য প্রয়োজনীয় অক্সিজেন এবং কার্বন-ডাই-অক্সাইড গ্যাসের কোশান্তর পরিবহন সম্পূর্ণরূপে ব্যাপন এর উপর নির্ভরশীল।

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৪.১. মানবদেহে মূত্র সৃষ্টিতে নেফ্রনের ভূমিকা আলোচনা করো।শ্বেত রক্তকণিকার দুটি কাজ লেখো।

মানবদেহে মূত্র সৃষ্টিতে নেফ্রনের ভূমিকা :

সাধারণত তিনটি পদ্ধতির মাধ্যমে মানবদেহে মূত্র সৃষ্টি হয় ।যথা –

i) পরাপরিস্রবন

ii) পুনর্বিশোষণ ও

iii) ক্ষরণ পদ্ধতি

i. পরাপরিস্রবন :- গ্লোমেরুলার রক্তচাপ ও রক্তের অভিস্রবণ চাপ এর পার্থক্য বৃক্কিয় ধমনী থেকে জল, লবণ, শর্করা, ইউরিয়া, ইউরিক অ্যাসিড প্রভৃতিকে পরিস্রাবিত করে বাওম্যান’ ক্যাপসুল বিবরে গ্লোমেরুলাস এর পরিস্রবক তরল হিসেবে জমা করে।

ii. পুনর্বিশোষণ :- পরিস্রাবিত তরল বৃক্কীয় নালি পথে যাওয়ার সময় নালিকগাত্রস্ত কোশ ওই তরল থেকে সম্ভাব্য পরিমাণ জলের সঙ্গে শর্করা, লবণ , অ্যামিনো অ্যাসিড ও কিছুটা ইউরিয়া, ইউরিক অ্যাসিড প্রভৃতি শোষণ করে দেশে ফিরিয়ে দেয়।

iii. ক্ষরণ :- বিজাতীয় বস্তু ও বিভিন্ন মৌলের আয়ন ক্ষরিত হয়ে নালিকাস্থিত তরলে মিশ্রিত হয়। এই তরলই প্রকৃত পক্ষে মূত্র। মূত্র সংগ্রাহক নালিকার মাধ্যমে গবীণিতে প্রবেশ করে ও পরিশেষে মূত্রথলিতে সঞ্চিতা হয়।

iv. শ্বেত কণিকার দুটি কাজ :- শ্বেত রক্তকণিকার ইওসিনোফিল, হিস্টামিন শোষণ করে অ্যালার্জি প্রতিরোধ করে।শ্বেত রক্তকণিকার নিউট্রোফিল রোগ জীবাণুকে ভক্ষণ করে ধ্বংস করে ।

Leave a Comment