অষ্টম শ্রেণি পঞ্চম অধ্যায় মেঘ ও বৃষ্টি 2 নম্বরের প্রশ্ন উত্তর ভূগোল

  1. কোন্ কোন্ মেঘ থেকে সাধারণত বৃষ্টিপাত হয় ?

উ:- সিরাোস্ট্রাটাস, অল্টোস্ট্যাটাস, নিম্বাস, নিম্বাোর্স্টাটাস, কিউমুলাোনিম্বাস মেঘে সর্বাধিক বৃষ্টিপাত ঘটে থাকে।

  1. কোনাো স্থানের আপেক্ষিক আর্দ্রতা 70% বলতে কী বাোঝায় ?

উ:- ওই স্থানের বায়ুকে পরিপৃক্ত করার জন্য যে-পরিমাণ জলীয় বাষ্পের প্রয়াোজন, ওই বায়ুতে তার 70% আছে।

  1. শিশির (Dew) কী ?

উ:- শিশির অধঃক্ষেপণ নয়। শীতের রাতে ভূপৃষ্ঠ দ্রুত তাপ বিকিরণ করলে ভূপৃষ্ঠ সংলগ্ন বায়ুস্তর শীতল হয়ে পড়ে এবং শিশির ওই বায়ুতে ভাসমান জলীয় বাষ্প শীতল ও ঘনীভূত হয়ে ছাোটো ছাোটো জলকণায় পরিণত হয়। এই জলকণা ঘাস, পাতা প্রভৃতির ওপরে দেখা যায়। ওইগুলিকে ‘শিশির’ বলা হয়।

  1. বাষ্পীভবন (Evaporation) কী ?

উ:- প্রচণ্ড উয়তায় জল বাষ্পে পরিণত হওয়ার প্রক্রিয়াকে বাষ্পীভবন বলা হয়। তরল জলের বাষ্পীয় রূপ হল জলীয় বাষ্প। জলের তরল অবস্থা বাষ্পে পরিণত হবার পদ্ধতিই বাষ্পীভবন।

  1. লীনতাপ (Latent heat) কাকে বলে ?

উ:- যে-তাপ পদার্থের উষ্ণতার পরিবর্তন না-ঘটিয়ে শুধুমাত্র অবস্থার পরিবর্তন ঘটায়, তাকে লীনতাপ বলে। এর ফলে পদার্থ কঠিন থেকে তরল ও তরল থেকে গ্যাসীয় অবস্থায় রূপান্তরিত হয়।

  1. সম্পৃক্ত বায়ু (Saturated air) কাকে বলে ?

উ:- কোনাো নির্দিষ্ট উন্নতায় নির্দিষ্ট পরিমাণ বায়ু যতটা পরিমাণ জলীয় বাষ্প ধারণ করতে পারে, সেই বায়ুকে সম্পৃক্ত বায়ু বলে।

  1. শিশিরাঙ্ক (Dew point) কাকে বলে ?

উ:- যে-তাপমাত্রায় বায়ু সম্পৃক্ত হয়, সেই উন্নতাকে ওই বায়ুর শিশিরাঙ্ক বলে। আর্দ্র বায়ুর তাপমাত্রা শিশিরাঙ্কে এসে পৌছালে বায়ু সম্পৃক্ত হয়ে পড়ে।

  1. ঘনিভবন ( CONDENSATION ) কাকে বলে ?

উ:- জলীয় বাষ্পের জলকণায় পরিণত হওয়ার প্রক্রিয়াকে ঘনীভবন বলা হয়। ঘনীভবনের মাধ্যমের জলীয় বাষ্প থেকে মেঘের সৃষ্টি হয়।

  1. কুয়াশা ( FOG ) কাকে বলে ?

উ:- কুয়াশা অধঃক্ষেপণ নয় সাধারণত শীতে, বিশেষত কুয়াশা ভাোরে জলাশয়ের ওপরে ভাসমান জলীয় বাষ্প অতিক্ষুদ্র জলকণায় ঘনীভূত হয়ে বাতাসে ভেসে থাকলে, তাকে কুয়াশা’ বলা হয়। শীতে ভূপৃষ্ঠের কাছে ও জলাশয়ের ওপরে জলীয় বাষ্পের মাত্রা বেশি থাকায় ওই সময় কুয়াশা বেশি দেখা যায়।

  1. ধোয়াশা ( SMOG ) কাকে বলে ?

উ:- শিল্পকলকারখানা যুক্ত অঞ্চলে প্রচুর ধোঁয়ার সৃষ্টি হয়। এই ধোঁয়া বায়ুমণ্ডলে অবস্থিত ধূলিকণাকে আশ্রয় করে ভেসে বেড়ায়। শীতকালে কুয়াশা এই ধূলিকণাগুলিকে আশ্রয় করে ভূপৃষ্ঠের কাছে নেমে আসে ও চারিদিকে এক ধোঁয়াটে পরিবেশের সৃষ্টি করে। কুয়াশা ও ধোঁয়ার এই মিলিত রূপকেই ধোঁয়াশা বলে।

  1. অধঃক্ষেপণ (Precipitation) কাকে বলে ?

উ:- পৃথিবীর অভিকর্ষের টানে বায়ুমণ্ডল থেকে জলকণা বা বরফকণা ভূপৃষ্ঠে নেমে এলে তাকে অধঃক্ষেপণ বলে।

  1. আপেক্ষিক আর্দ্রতা (Relative Humidity) কাকে বলে ?

উ:- কোনাো নির্দিষ্ট উন্নতায় নির্দিষ্ট পরিমাণ বায়ুতে যেপরিমাণ জলীয় বাষ্প আছে এবং সেই উম্নতায় ওই বায়ুকে সম্পৃক্ত করার জন্য যে-পরিমাণ জলীয় বাপ প্রয়াোজন, এই দুই-এর অনুপাতকে আপেক্ষিক আর্দ্রতা বলা হয়। এই আর্দ্রতা শতকরা হিসাবে প্রকাশ করা হয়।

  1. বৃষ্টিপাত ( RAINFALL ) কাকে বলে

উ:- আকাশে ভাসমান মেঘ ঘনীভূত হয়ে ধূলিকণাকে আশ্রয় করে ছাোটো ছাোটো জলকণার সমষ্টিতে পরিণত হয়। একে বৃষ্টিপাত বলে ( RAINFALL ) বলে ।

  1. পরিচলন বৃষ্টিপাত (Convectional Rainfall) কাকে বলে ?

উ:- জলীয় বাষ্পপূর্ণ হালকা বায়ু উপরে উঠে শীতল ও ঘনীভূত হয়ে যে-বৃষ্টিপাত ঘটায়, তাকে পরিচলন বৃষ্টিপাত বলে। নিরক্ষীয় অঞ্চলে দুপুরের পর বা বিকেলের দিকে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ মুষলধারে বৃষ্টিপাত হয়।

  1. শৈলাোৎক্ষেপ বৃষ্টিপাত (Orographic Rainfall ) কাকে বলে ?

উ:- সমুদ্রের দিক থেকে আসা জলীয় বাষ্পযুক্ত আর্দ্র বায়ুর প্রবাহ পথে আড়াআড়ি ভাবে কোনাো পর্বত বা উচ্চভূমি অবস্থান করলে ওই বায়ু বাধা পেয়ে পর্বতের ঢাল বেয়ে উপর দিকে উঠে ঘনীভূত ও প্রসারিত হয়ে যে-বৃষ্টিপাত ঘটায়, তাকে শৈলাোৎক্ষেপ বৃষ্টিপাত বলে।

  1. প্রতিবাত ঢাল (Windward slope) কাকে বলে ?

উ:- পর্বতের যে ঢাল বরাবর বায়ু উপরের দিকে ওঠে এবং বৃষ্টিপাত ঘটায়, তাকে প্রতিবাত ঢাল বলে।

  1. অনুবাত ঢাল (Leeward Slope) কাকে বলে ?

উ:- শৈলাোৎক্ষেপ বৃষ্টিপাত ঘটার পর পর্বতের বিপরীত দিকে যখন বায়ু প্রবাহিত হয় তখন সেই বায়ুতে আর কোনাো জলীয় বাষ্প থাকে না। ফলে সেখানে কোনাো বৃষ্টিপাত হয় না ও শুষ্ক পরিবেশের সৃষ্টি হয়। পর্বতের এই বিপরীত ঢালকেই অনুবাত ঢাল বলা হয়। উদাহরণ চেরাপুঞ্জির বিপরীতে শিলং মালভূমি।

  1. ঘূর্ণবৃষ্টি (Cyclonic Rainfall) কাকে বলে ?

উ:- ঘূর্ণবাতের কেন্দ্রাভিমুখী উর্ধ্বগামী বায়ু শীতল ও ঘনীভূত হয়ে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত ঘটায়। এই ঘূর্ণবাত থেকে সৃষ্ট বৃষ্টিপাতকে ঘূর্ণবৃষ্টি বলে।

  1. ঘূর্ণবাতের (Cyclone) কাকে বলে ?

উ:- দুই গাোলার্ধে 5°-20° অক্ষাংশের মধ্যবর্তী অঞ্চলে উৎপন্ন ক্রান্তীয় ঘূর্ণবাতের কেন্দ্রে বায়ুর চাপ সব থেকে কম থাকে, এই অঞ্চলটিকে ঘূর্ণবাতের চক্ষু বলে।

  1. তুষারপাত (Snowfall) কাকে বলে ?

উ:- সাধারণত শীতপ্রধান দেশে এবং উচু পার্বত্য অঞ্চলে জলীয় বাষ্পযুক্ত বায়ু হিমাঙ্কের থেকে কম উম্নতায় ঘনীভূত হলে জলকণার বদলে সরাসরি বরফকণায় বা তুষারে পরিণত হয়। এই তুষার মাধ্যাকর্ষণর টানে ভূপৃষ্ঠে ঝরে পড়লে তাকে তুষারপাত বলে।

  1. গুড়িবৃষ্টি ( DRIZZEL) ও ( SLEET ) কাকে বলে ?

উ:- বৃষ্টিপাতের পরিমাণ মাপতে যে-যন্ত্রের ব্যবহার করা হয়, তাকে ‘রেনগেজ বলে। আবিষ্কার করেন। ক্রিস্টোফার রেন 1662 খ্রিস্টাব্দে রেনগেজ

 

Leave a Comment