Class 10 Geography Model Activity Task February 2022 Part-2

প্রিয় বন্ধুরা এই মাসে অর্থাৎ ফেব্রুয়ারি মাসের তোমাদের যে বাংলার শিক্ষা পোর্টাল থেকে সমস্ত Model Activity Task গুলি করতে বলা হয়েছে যেমন– Geography Model Activity Task Class 10 February 2022, Class 10 Model Activity task Part-2 মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ক্লাস 10 ইতিহাস: আজকে তোমাদের সাথে আজ আমরা  Class 10 Geography Model Activity Task February 2022 Part-2শেয়ার করছি। তোমরা এই Page-এ সহজেই ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ইতিহাস বিষয়ের দশম শ্রেণির মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক উত্তর করতে পারবে।

Class 10 Geography Model Activity Task February 2022 Part-2

দশম শ্রেণি

ভূগােল।

পূর্ণমান : ২০

Class 10 Geography Model Activity Task ফেব্রুয়ারী পার্ট-২

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখাে :১x3 =৩

১.১ বায়ুমণ্ডলের যে স্তরে প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল আবহাওয়া লক্ষ করা যায় সেটি হলাে –

(ক) আয়নােস্ফিয়ার

(খ) স্ট্র্যাটোস্ফিয়ার

(গ) এক্সোস্ফিয়ার

(ঘ) ট্রপােস্ফিয়ার।

উঃ-  (ঘ) ট্রপােস্ফিয়ার।

১.২ যে বায়ুকে তুষার ভক্ষক বলা হয় তা হলাে –

(ক) লু

(খ) তাঁধি

(গ) চিনুক।

(ঘ) খামসিন।

উঃ-  (গ) চিনুক।

১.৩ উপক্ৰান্তীয় উচ্চচাপ বলয় তাবস্থান করে –

(ক) ৬০° – ৭০° উত্তর ও দক্ষিণ তাক্ষরেখার মধ্যে।

(খ) ২৫° – ৩৫° উত্তর ও দক্ষিণ তাক্ষরেখার মধ্যে

(গ) ১০৭ – ২০° উত্তর ও দক্ষিণ তাক্ষরেখার মধ্যে

(ঘ) ৭০° – ৮০° উত্তর ও দক্ষিণ তাক্ষরেখার মধ্যে।

উঃ- (খ) ২৫° – ৩৫° উত্তর ও দক্ষিণ তাক্ষরেখার মধ্যে

দশম শ্রেণির ভূগোল ফেব্রুয়ারি মাসের পার্ট -২ মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

২.১ বাক্যটি সত্য হলে ‘ঠিক’ এবং অসত্য হলে ‘ভুল’ লেখাে: ১x৩=৩

২.১.১ কোনাে নির্দিষ্ট আয়তনের বায়ুতে যে পরিমাণ জলীয় বাষ্প থাকে তাকে ঐ বায়ুর তাপেক্ষিক আর্দ্রতা বলে।

উঃ- ‘ঠিক’

২.১.২ দক্ষিণ গােলার্ধে স্থলভাগের বিস্তার বেশি হওয়ার কারণে পশ্চিমা বায়ু প্রতিহত গতিতে প্রবাহিত হয়।

উঃ- ‘ভুল’

২.১.৩ সমুদ্রবায়ু দিনের বেলায় প্রবাহিত হয়।

উঃ- ‘ঠিক’

২.২ একটি বা দুটি শব্দে উত্তর দাও : ১x২=২

২.২.১ একই উয়তাযুক্ত স্থানগুলিকে মানচিত্রে যে রেখা দ্বারা যুক্ত করা হয় তাকে কী বলে?

উঃ- সমোষ্ণরেখা

২.২.২ কোন যন্ত্রের সাহায্যে বায়ুর চাপ পরিমাপ করা হয় ? ৩. নীচের প্রশ্নগুলির সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :২x২=৪

উঃ- ব্যারোমিটার

February 2022 Geography model Activity Task Part-2

৩.১ কুয়াশাকে কেন তাধঃক্ষেপণ বলা হয় না?

উঃ- তরল অধঃক্ষেপন হল বৃষ্টিপাত আর কঠিন অধঃক্ষেপণ হলো তুষারপাত স্লিট বা শিলাবৃষ্টি। বেশিরভাগ অধঃক্ষেপন বৃষ্টিপাত হিসাবে পরিচিত হলেও সব রকমের অধঃক্ষেপন বৃষ্টিপাত নই জলীয় বাষ্প ঘনীভূত হয়ে ভূপৃষ্ঠ এসে না পৌঁছলে তাকে অধঃক্ষেপণ বলা হয় না সে জন্য কুয়াশাকে কতক্ষণ বলা যায় না ।

৩.২ বিশ্ব উম্নয়নের দুটি প্রভাব উল্লেখ করাে।

উঃ- বিশ্ব উষ্ণায়ন এর প্রভাব বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রভাব গুলি হল

বরফের গলন:

সমগ্র বিশ্বের উষ্ণতার স্বাভাবিক সমগ্র বিশ্বের মমতা অস্বাভাবিক ভাবে বাড়ার প্রভাবে

1. মেরু প্রদেশের বরফ গলছে

2. বরফ গলনের এশিয়ার উত্তর বাহিনী নদী গুলির বর্ণনা প্রবণতা বাড়ছে

3. পশ্চিম আন্টার্টিকায় বরফের চাদর প্রতিবছর 400 ফুট করে ডুবছে

সমুদ্রতলের উচ্চতা বৃদ্ধি:

1. গত 100 বছরে হিমবাহের গলনে সমুদ্রের উচ্চতা প্রায় 10 থেকে 25 সেন্টিমিটার বেড়েছে

2. বিজ্ঞানী দের আশঙ্কা এই শতাব্দীতে উচ্চতা আরো 15 থেকে 1 মিটার বাড়বে

3. এই অবস্থায় বেশকিছু উপকূল সমুদ্রের তলায় ডুবে যাবে

The New February Geography model Activity Task 2022 Part-2

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

কীভাবে কোনাে একটি স্থানের উচ্চতা সেই তাণ্ডলের বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রাকে প্রভাবিত করে?

উঃ-  কোন একটি স্থানের উচ্চতা সে অঞ্চলের বায়ুমন্ডলে তাপমাত্রাকে নিম্নলিখিত উপায় প্রভাবিত করে

1. উচ্চতা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে গড়ে 1000 মিটার উচ্চতা বৃদ্ধিতে প্রায় 114.40 মিলিবার বায়ুর চাপ কমে।

2. নিচের বায়ুমণ্ডলের ঘনত্ব বেশি হওয়ায় বায়ুর চাপ বেশী। তাই উচ্চতা বৃদ্ধিতে বায়ুর চাপ হ্রাস পায়

3. পৃথিবীর কেন্দ্রে থেকে দূরত্ব বৃদ্ধিতে অভিকর্ষ আকর্ষণ কমায় সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়ার সাথে বায়ুর চাপ কমতে থাকে

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :  ৫x১=৫

চিত্রসহ উষ্ণুতার তারতম্যের ভিত্তিতে বায়ুমণ্ডলের বিভিন্ন স্তরের সংক্ষিপ্ত বিবরণ দাও। ৩x১=৩

উঃ- উষ্ণতা হ্রাস বৃদ্ধির ভিত্তিতে বায়ুমণ্ডলের স্তরবিন্যাসঃ উষ্ণতার হ্রাসবৃদ্ধির উপর ভিত্তি করে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল কে  নিম্নলিখিত 6 টি ভাগে ভাগ করা হয়েছে

ট্রপোস্ফিয়ার: এটি বায়ুমণ্ডলের নিম্ন স্তর ভূপৃষ্ঠ থেকে ট্রপোস্ফিয়ারের উচ্চতা নিরক্ষীয় প্রদেশ 18 কিলোমিটার এবং দুই মেরুতে 8 কিমি হয় ট্রপোস্ফিয়ারের ঊর্ধ্বে প্রায় 3 কিমি উচ্চতা পর্যন্ত উষ্ণতার হ্রাস বা বৃদ্ধি না ঘটা স্তরটিকে ট্রপোপজ বলে

স্ট্রাটোস্ফিয়ার: ট্রপোপজের লেট ঊর্ধ্বে 50 কিমি উষ্ণতা পর্যন্ত বিস্তৃত অঞ্চলকে স্ট্রাটোস্ফিয়ার বলে। স্ট্রাটোস্ফিয়ারে উচ্চতা বৃদ্ধিতে উষ্ণতা বৃদ্ধি পায় ট্রপোপজের -80 ডিগ্রী সে. উষ্ণতা বেড়ে স্ট্রাটোস্ফিয়ার ঊর্ধ্বে 4 ডিগ্রী সে. হয়।

এই স্তরে বায়ুপ্রবাহকে জলীয়বাষ্প মেঘনা থাকায় স্তর কে শান্ত মন্ডল বলে দ্রুতগামী জেট বিমান এই স্তরে চলাচল করে

ছবিটি পেন্সিল দিয়ে অঙ্কন করে নিবে

মেসোস্ফিয়ার: স্ট্রাটোপজের ঊর্ধ্বে ৮০ কিমি উচ্চতা পর্যন্ত অংশকে মেসোস্ফিয়ার বলে।

উচ্চতা বৃদ্ধিতে উষ্ণতা হ্রাস পায়। ৮০ কিমি উচ্চতায় এই স্তরে বায়ুমণ্ডলের সর্বনিম্ন উন্নতা হয় -১০০° সে.। মেসোস্ফিয়ারের ঊর্ধ্বাংশে কিছুদুর পর্যন্ত স্থির উষ্ণতাযুক্ত স্তরকে মেসোপজ বলে।

থামোস্ফিয়ার বা আয়নোস্ফিয়ার : মেসোপজের উর্ধ্বে ৫০০ কিমি উচ্চতা পর্যন্ত বিস্তৃত অঞ্চলকে থামোস্ফিয়ার বলে। এই স্তরের নীচের অংশের বায়ু আয়নিত অবস্থায় থাকায় একে আয়নোস্ফিয়ার বলে। এখানে বায়ুর ঘনত্ব অত্যন্ত কম। উচ্চতা বৃদ্ধির সাথে উষ্ণতা দ্রুত হারে বাড়ে ৩৫০ কিমি উচ্চতায় উষ্ণতা বেড়ে দাঁড়ায় ১২০০°সে.।

বায়ুকণা পরমাণুতে পরিণত হওয়ায় শক্তিশালী ইলেকট্রন ও প্রোটনের সংস্পর্শে বেরিয়ে আসা আলোকরশ্মিকে সুমেরুতে অরোরা বোরিয়ালিস বা সুমেরুপ্রভা এবং কুমেরুতে অরোরা অস্ট্রালিস বা কুমেরুপ্রভা বলে।

এক্সোস্ফিয়ার : আয়নোস্ফিয়ারের উর্ধ্বে ৫০০-৭৫০ কিমি উচ্চতা পর্যন্ত স্তরকে এক্সোস্ফিয়ার বলে।

এই স্তরে আণবিক অক্সিজেন, হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম গ্যাসের প্রাধান্য দেখা যায়। এই স্তরের উচ্চতা বৃদ্ধির সাথে উষ্ণতা ১২০০-১৬০০°সে. পর্যন্ত হয়, যদিও বাতাসের ঘনত্ব কম থাকায় এই উষ্ণতা অনুভব করা যায় না।

ম্যাগনেটোস্ফিয়ার: এক্সোস্ফিয়ারের ঊর্ধ্বাংশকে ম্যাগনেটোস্ফিয়ার বলে। এটিই বায়ুমণ্ডলের উর্ধবতম স্তর তথা পৃথিবীর শেষ সীমা। সৌর বায়ু থেকে নির্গত ইলেকট্রন ও প্রোটন দ্বারা গঠিত চৌম্বকক্ষেতর বায়ুমণ্ডলকে বেষ্টন করে আছে বলে এই স্তরকে ম্যাগনেটোস্ফিয়ার বলে। এই স্তরের নীচে পারমাণবিক অক্সিজেন, মাঝে হিলিয়াম এবং উর্ধ্বে হাইড্রোজেন গ্যাসের প্রাধান্য দেখা যায়। নিরক্ষীয় অঞ্চলের সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩,০০০ কিমি এবং ১৬,০০০ কিমি উচ্চতার দুটি ঘন বলয়যুক্ত ম্যাগনেটোপজকে ভ্যান অ্যালেন বিকিরণ বলয় বলে।

Class 10 All Subject Answers Links

Leave a Comment