Class 4 Model Activity Task Bengali 2022 February Part-2

বন্ধুরা এই মাসে অর্থাৎ ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলারশিক্ষা পোর্টাললের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের সরকার প্রথম শ্রেনী থেকে  দশমশ্রেনী পর্যন্ত সমস্ত বিষয়ের মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক যেমন– Class 1 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 2 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 3 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 4 Model Activity Task 2022 February Part-2, Class 5 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 6 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 7 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 8 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 9 Model Activity Task February 2022 Part-2, Class 10 Model Activity Task February 2022 Part-2

Class 4 Model Activity Task 2022 February Part-2

তো প্রিয় বন্ধুরা তোমাদের এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা Class 4 Model Activity Task 2022 February Part-2 শেয়ার করছি। তোমরা এই পেজ থেকে সহজেই ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের চতুর্থ শ্রেনীর মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট-২ উত্তর করে নিতে পারবে।

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

চতুর্থ শ্রেণি

বাংলা

পূর্ণমান :১৫

১. ঠিক উত্তরটি বেছে নিয়ে লেখাে : ১x৩=৩

১.১ বনের ধারে আছে মস্ত —

 (ক) নদী

(খ) পাহাড় 

(গ) মাঠ

(ঘ) গর্ত 

উঃ- (খ) পাহাড় 

১.২ ছাগলছানার দেখা প্রথম বড়াে জন্তুটি হলাে— 

(ক) ভালুক

(খ) বাঘ 

(গ) সিংহ

(ঘ) ষাঁড় 

উঃ- (ঘ) ষাঁড় 

১.৩ শিয়াল রাক্ষস ভেবেছে— 

(ক) বাঘকে

(খ) ছাগলছানাকে 

(গ) ষাঁড়কে

(ঘ) ভালুককে 

উঃ- (খ) ছাগলছানাকে 

Class 4 Model Activity Task 2022 February Part-2

২. নীচের প্রশ্নগুলির একটি বাক্যে উত্তর দাও : ১x৩=৩

২.১ ছাগলছানা কোথায় থাকত?

উঃ- মাঠের পাশের বনের ধারে যে মস্ত পাহাড় আছে সেইখানে একটি গর্তের ভিতরে ছাগলছানা থাকতো। 

২.২ গর্তের বাইরে যেতে চাইলে ছাগলছানার মা তাকে কী বলত?

উঃ- গর্তের বাইরে যেতে চাইলে ছাগল ছানার মাভ তাকে বলতো যাসনে ভালুকে ধরবে, বাঘে নিয়ে যাবে, সিংহে খেয়ে ফেলবে। 

২.৩ ‘তুমি যাও, আমি কাল যাব।” – ছাগলছানা কেন একথা বলেছিল? 

উঃ- বনের ভিতরে চমৎকার ঘাস খেয়ে ছাগল ছানার পেট এমন ভারি হয়ে পড়েছিল যে সে চলতে পারছিল না তাই একথা বলা হয়েছে।

Model Activity Task 2022 February Part-2 Class 4

৩. নীচের প্রশ্নগুলির সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও : ২x৩=৬

৩.১ গর্তের ভিতর কে ও?” – এই প্রশ্নের উত্তরে ছাগলছানা কী বলেছিল? 

উঃ- 

“লম্বা লম্বা দাড়ি

ঘন ঘন নাড়ি।

সিংহের মামা আমি নরহরি দাস

পঞ্চাশ বাঘে মোর এক এক গ্রাস !”

৩.২ শুনেই তাে ভয়ে বাঘের প্রাণ উড়ে গিয়েছে।’ – বাঘ ভয় পেয়েছে কেন?

উঃ- বাঘ শিয়ালকে লেজের সঙ্গে বেঁধে শিয়ালের গর্তের কাছে এলে ছাগলছানা দূর থেকে তাদের দেখতে পায়। তাদের দেখে ছাগলছানা বুদ্ধি করে শেয়ালকে বলে 

“দূর হতভাগা তোকে দিলাম দশভাগের করি 

একবাঘ নিয়ে এলি লেজে দিয়ে দড়ি!” 

এই কথা শুনে ভয় পেয়ে যায় কারণ সে ভেবেছিল শিয়াল তাকে তাকে দিয়ে নরহরি দাস কে দেওয়ার জন্য তাকে নিয়ে এসেছে। 

৩.৩ বাঘের উপর শিয়ালের রাগ হয়েছিল কেন ?  

উঃ- নরহরি দাস এর (ছাগল ছানার) কথা শুনে ভয়ে বাঘের প্রাণ উড়ে গিয়েছিল, ফলে সে পঁচিশ হাত লম্বা এক লাফ দিয়ে তার লেজে বাধা শিয়াল কে নিয়ে দৌড়াতে থাকে। সেই কারণে শিয়াল মাটিতে আছাড় খেয়ে, কাঁটার আঁচোড় খেয়্‌ ক্ষেতের আলে ঠোক্কর খেয়ে, প্রায় আধমরা হয়ে পড়েছিল। বাঘ মামার এই ব্যবহারের ফলে শিয়ালের যায় যায় অবস্থা হয়ে গিয়েছিল বলে বাঘের উপর শিয়ালের রাগ হয়েছিল।

Model Activity Task Class 4 2022 February Part-2

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর নিজের ভাষায় লেখাে :

নরহরি দাস’ গল্পে ছাগলছানার বুদ্ধির পরিচয় কীভাবে ফুটে উঠেছে?

উঃ- উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরীর লেখা নরহরি দাস গল্পে দেখা যায় বনের ভিতর বেশি পরিমাণে ঘাস খেয়ে ছাগলছানাটি আর চলতে না পারায় এক শিয়ালের গর্তে আশ্রয় নেয়। গর্তের ভেতর থেকে সে শিয়ালকে দেখেও ভয় না পেয়ে নিজেকে সিংহের মামা নরহরি দাস বলে পরিচয় দেয়। কোন জন্তুর নাম উচ্চারণ করে ফেলতে নরহরি দাস এর নাম নিয়ে শিয়ালের মনে আতঙ্ক তৈরি করেছিল সেই সঙ্গে এক গ্রাসে পঞ্চাশ বাঘ খেতে পারে বলে শিয়ালের ভয়  আরো বাড়িয়ে দিয়েছিল একইভাবে বাঘের সামনে এসে শিয়াল কে উদ্দেশ্য করে বলে যে তাকে দশ বাঘের কড়ি দিলেও সে মাত্র একটি বাঘকে নিয়ে এসেছে। এই কথায় বাঘও ভয়ে পালায়। এইভাবে ছাগলের বুদ্ধির পরিচয় ফুটে উঠেছে এই গল্পে। 

Class 10 All Subject Answers Links

Leave a Comment