ভূগোল ষষ্ঠ শ্রেনী প্রথম অধ্যায় ২নম্বরের প্রশ্ন ও উত্তর

 ভূগোল ষষ্ঠ শ্রেনী প্রথম অধ্যায় ২নম্বরের প্রশ্ন ও উত্তর

ভূগোল ষষ্ঠ শ্রেনী প্রথম অধ্যায় ২নম্বরের প্রশ্ন ও উত্তর

 

1.মহাবিশ্ব (Universe)

কোটি কোটি জ্যোতিষ্ক অর্থাৎ গ্রহ, উপগ্রহ, নক্ষত্র, গ্রহাণুপুঞ্জ, ধূলিকণা, গ্যাস প্রভৃতি নিয়ে গঠিত অসীম শূন্যস্থানকে মহাবিশ্ব বলে।

2.নীহারিকা (Nebula)

মহাবিশ্বে যে-অসংখ্য ধূলিকণা ও গ্যাসের মহাজাগতিক মেঘ তৈরি হয়, তাকে নীহারিকা বলে।

3.ছায়াপথ (Galaxy)

লক্ষ লক্ষ নক্ষত্র, গ্যাস, ধূলিকণা নিয়ে গঠিত হয় ছায়াপথ।

4.নক্ষত্র (Star)

জ্বলন্ত গ্যাসীয় পিণ্ড, যাদের নিজস্ব আলাে ও উত্তাপ আছে, তাদের নক্ষত্র বলে।

5.আলােকবর্ষ (Light Year)

মহাশূন্যের অতি বিশাল দূরত্ব মাপার একক।

6.নক্ষত্রমণ্ডল (Constellation)

কাছাকাছি থাকা তারাগুলিকে কাল্পনিকভাবে যােগ করলে বিভিন্ন আকৃতি বিশিষ্ট এক একটা তারার ঝাঁককে নক্ষত্রমণ্ডল বলে।

7.সৌরজগৎ (Solar System)

সূর্যকে ঘিরে থাকা গ্রহ, উপগ্রহ, ধূলিকণা, গ্যাস, গ্রহাণুপুঞ্জ সবকিছু নিয়ে সৌরজগৎ সৃষ্টি হয়েছে।

8.স্পেস সুট (Space Suit)

মহাকাশে যাওয়ার পােশাককে বলে স্পেস সুট। এর ভিতরে হাওয়া ভরা থাকে যা, অক্সিজেনের জোগান দেয়।

9.স্পেস শাটল (Space Shuttle)

পৃথিবীতে অবতরণ করার জন্য মহাকাশচারীদের ব্যবহৃত বিশেষ ধরনের মহাকাশযান।

10.কৃত্রিম উপগ্রহ (Artificial Satellite)

মানুষের তৈরি যে-যন্ত্র পৃথিবীর চারদিকে ঘােরে, তাকে কৃত্রিম উপগ্রহ বলে।

11.চন্দ্রগ্রহণ (Lunar eclipse)

কোনাে কোনাে পূর্ণিমায় পৃথিবীর ছায়ায় চাঁদ ঢেকে যায়। সেই সময়কে চন্দ্রগ্রহণ বলে।

12.গ্রহ (Planet)

নিজস্ব আলাে, উত্তাপহীন এবং নক্ষত্রের চারিদিকে ঘূর্ণায়মান জ্যোতিষ্ককে গ্রহ বলে।

13.উপগ্রহ (Satellite)

যে-জ্যোতিষ্কগুলি নিজের আলাে ও উত্তাপ ছাড়াই গ্রহের আকর্ষণে গ্রহের চারিদিকে ঘােরে, তাদের উপগ্রহ বলে। সৌরজগতে মােট 335টি উপগ্রহ আছে।

14.গ্রহাণুপুঞ্জ (Asteroids)

গ্রহের মতাে খুব ছােটো ছােটো জ্যোতিষ্ক নির্দিষ্ট কক্ষপথে সূর্যের চারিদিকে ঘুরছে। এদের গ্রহাণুপুঞ্জ বলা হয়। পৃথিবীপৃষ্ঠ থেকে বহুদূরে অবস্থিত।

15.উল্কা (Meteor)

পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ শক্তির প্রভাবে প্রচণ্ড বেগে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসা জ্যোতিষ্ককে উল্কা বলে। পরিষ্কার রাতের আকাশে উল্কাকে প্রায়শই দেখা যায়। উল্কার কোনাে কক্ষপথ নেই।

16.ধূমকেতু (Comet)

ঝাঁটার মতাে ল্যাজবিশিষ্ট উজ্জ্বল জ্যোতিষ্ককে ধূমকেতু বলে। বহুকাল পরপর ধূমকেতু দেখা যায়।

17.রকেট (Rocket)

সহজে মহাকাশে পাড়ি দেওয়ার জন্য বিজ্ঞানীরা যে-ক্ষমতাসম্পন্ন যান তৈরি করেছেন, তাকে রকেট বলে। সেকেন্ড 11.2 কিমির বেশি গতি থাকে।

18.বুধের এক বছর পৃথিবীর চেয়ে কম সময়ে হয় কেন?

উত্তর দূরত্ব অনুসারে পৃথিবী থেকে বুধ সূর্যের নিকটে রয়েছে। পৃথিবী একবার সূর্যকে পরিক্রমণ করতে সময় নেয় 365 দিন5 ঘণ্টা 48 মিনিট 46 সেকেন্ড, যাকে এক বছর ধরা হয়। অন্যদিকে বুধ একবার সূর্যকে পরিক্রমণ করতে সময় নেয় 88 দিন, যাকে এক বছর ধরা হয়। অর্থাৎ, পৃথিবীর তুলনায় বুধ কম দিনে সূর্যকে পরিক্রমণ করে বলে বুধের একবছর পৃথিবীর এক বছরের চেয়ে কম সময়ে হয়।

19.আমরা চাঁদের একটি পিঠ দেখতে পাই কেন?

 উত্তর চাঁদ পৃথিবীর উপগ্রহ। চাঁদ নিজের অক্ষের চারদিকে ঘুরতে ঘুরতে পৃথিবীকে পরিক্রমণ করে। চাঁদের নিজের অক্ষের চারদিকে ঘুরতে সময় লাগে 27 দিন 7 ঘণ্টা 43 মিনিট। এই একই সময়ে চাঁদ একবার পৃথিবীর চারদিকে ঘুরে নেয়। অর্থাৎ, চাঁদের আবর্তন ও পরিক্রমণের সময়কাল একই। চাঁদের দুটি গতির সময়কাল একই হওয়ার কারণে আমরা সর্বদা চাঁদের একটি পিঠ দেখতে পাই।

20.ধূমকেতু দেখা যায় অনেকদিন বাদে বাদে কেন?

 উত্তর ধূমকেতুদের সূর্য পরিক্রমার কক্ষপথ সুদীর্ঘ হয়। এইজন্য এদের বহুদিন বাদে বাদে দেখা যায়। যেমন—হ্যালির ধূমকেতু 76 বছর অন্তর দেখা যায়। ধূমকেতুরা যখন নক্ষত্রদের নিকটবর্তী হয় তখন এদের মধ্যস্থিত ধুলাে, গ্যাস জ্বলতে শুরু করে এবং ল্যাজের মতাে আকৃতি ধারণ করে।

21.দিনেরবেলা জ্যোতিষ্কদের দেখা যায় না কেন?

উত্তর দিনেরবেলা সূর্য উজ্জ্বল কিরণ দেয় বলে এই সময়ে আকাশে চাঁদ, গ্রহ, নক্ষত্র প্রভৃতি উজ্জ্বল জ্যোতিষ্কদের দেখা যায় না। প্রশ্ন। মঙ্গলের মাটির রং লাল। উত্তর মঙ্গল গ্রহের ভূপৃষ্ঠে প্রচুর পরিমাণে লােহা রয়েছে। বিশুদ্ধ লােহার রং লাল বলে মঙ্গল গ্রহের মাটির রং লাল। এইজন্য মঙ্গলকে ‘লালগ্রহ’ বলা হয়।

File Details –

PDF Name / Book Name ভূগোল ষষ্ঠ শ্রেনী প্রথম অধ্যায় ২নম্বরের প্রশ্ন ও উত্তর
Language : Bengali
Size : 124 kb
Download Link : Click Hereto Download

 


Leave a Comment